নতুন নতুন ভালোবাসার গল্প ও কবিতা পেতে আমাদের পাশেই থাকুন।

♥মামাতো বোনকে বিয়ে♥ ৬ষ্ঠ পর্ব Valobasar Golpo Married to cousin sister

♥মামাতো বোনকে বিয়ে♥
৬ষ্ঠ পর্ব
Valobasar Golpo Married to cousin sister
লেখকঃSk_Polok
অনিকা আমাকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরে আছে।আর আমি অনিকার কোমল স্পর্শ পেয়ে একদম চুপ হয়ে গেছি..
অনিকা যখন আমাকে জড়িয়ে ধরে কেনো জানিনা আলাদা একটা প্রশান্তি কাজ করে।অনিকা আমাকে অনেকক্ষণ জড়িয়ে ধরে ছিলো..
আমিঃএই এইবার ছাড়ো সবাই দেখছে তো?
অনিকাঃনাহ আমি তোমাকে ছাড়বো না,ছাড়লে তুমি তোমার বউয়ের কাছে চলে যাবে আর আমাকে ভুলে যাবে...
আরো গল্প পড়ুন: আমার ভালোবাসা তোর জন্য .. Valobasar Golpo 2
আমিঃকিন্তু আমাকে তো বাসায় ফিরতেই হবে..আর আমি অই মাতালির কাছে যাবো না...
অনিকাঃতবুও তোমাকে ছাড়তে ইচ্ছা করছে না..
আমিঃকিন্তু সবাই দেখছে তো কি ভাববে বলো তো??
অনিকাঃভাববে একজন প্রেমিকা তার পাগল প্রেমিককে শান্ত করার জন্য জড়িয়ে ধরে আছে..
আমিঃসবাই কিন্তু খারাপ নজরে দেখছে ছাড়ো এইবার..
অনিকা আমাকে ছেড়ে দিলো..
অনিকাঃএই চলো আমরা ফুসকা খাবো...
আমি;যদি আমাকে খাইয়ে দাও তাহলে খেতে পারি...
অনিকাঃএহহ আর কতদিন খাইয়ে দিবো.তুমি কি এখনো পিচ্চি আছো নাকি??
আমি;হ্যা আমি তো পিচ্চি আছি তুমি জানোনা??
অনিকাঃকথা কম চলো আমার খুব ক্ষুধা লেগেছে।
আচ্ছা চলো
দুইপ্লেট ফুসকা নিলাম।আমার হাতে একপ্লেট আর অনিকার হাতে একটা।আমি প্লেট হাতে নিয়ে বসে আছি..আর অনিকা আমাকে খাইয়ে দিচ্ছে...মাঝে মাঝে অনিকা খাচ্ছে...
অনিকার হাতে যে প্লেট ছিলো সেটা শেষ তারপর আমার হাতের টা নিয়ে টপ টপ করে খেতে শুরু করলো..আমি শুধু দেখছি আর হাসছি অনেক ভালো লাগছে দেখতে...
অনিকাঃএই তুমি কিন্তু আমার খাবারে একদম নজর দিবা না,,আমার পেট খারাপ হবে..
আমিঃধুর কি যে বলো আমি তো তোমাকে দেখছিলাম।
অনিকাঃআমাকে তো গত দুইবছর ধরেই দেখে যাচ্ছো আজকে নতুন করে দেখার কি হলো??
আমি;তোমাকে যত দেখি তত ভালো লাগে তাই দেখি😜😜
অনিকাঃহয়ছে আর পাম দিতে হবে না...
অনিকার খাওয়া শেষ.
বিল দিয়ে আবার হাটতে শুরু করলাম।অনেকদিন পর আজকে আবার অনিকার সাথে হাটছি..
কিছুক্ষণ হাটার পর
আমার নিলার কথা মনে পড়ে গেলো,নিলা বাসায় একা আছে,আর নতুন বাসা ভয় পেতে পারে নাহ আর বাহিরে থাকা ঠিক হবে না আমাকে বাসায় যেতে হবে..
আমি;অনেক তো ঘুরাঘুরি হলো আমাকে এখন বাসায় যেতে হবে..
অনিকাঃআর কিছুক্ষণ থাকি না প্লিজ??
আমি;নাহ আমাকে এখুনি বাসায় চলে যেতে হবে..
অনিকা;অহহ বুঝতে পেরেছি নতুন বউ রেখে এখন কি আমাকে সময় দিতে ইচ্ছা করবে??
আমিঃএই তুমি কিন্তু আমাকে ভুল বুঝছো,,আসলে আমার অফিসের কিছু কাজ আছে সেগুলো করে রাখতে হবে..
অনিকাঃআচ্ছা যাও কিন্তু কথা দিয়ে যাও অই মেয়ের পাশে একদম যাবে না
আমিঃআচ্ছা যাবো না..
অনিকাঃআচ্চা যাও দেখে শুনে যাবে।
আমি;তুমিও সাবধানে যাবে।আর বাসায় যাবার পর আমাকে ফোন দিয়ে জানিও...
তারপর আমরা দুজন এক অপরকে বাই বলে।যার যার বাসায় চলে গেলাম
মানে আমি আমার বাসায় চলে আসলাম।
বাসার দরজা খুলতেই দেখি বাসা একদম এলোমেলো..
আমি অবাক হয়ে গেলাম।আমার এতো সুন্দর করে গোছানো বাসা এলোমেলো করলো কে??
অহহ এই বাসায় তো নিলা ছাড়া কেও নাই..তাহলে মনে হয় নিলাই করেছে,,আমি নিলাকে খুঁজতে শুরু করলাম।কিন্তু নিলাকে কোথাও পাচ্ছিলাম না।গেলো কোথায়য় মেয়েটা রান্না ঘরে গিয়ে দেখি ডিম ভাজছে..
আমিঃএই তুমি রান্না ঘরে কি করো?
নিলা;কেনো দেখতে পারছো না কি করছি??
আমিঃহ্যা ডিম ভাজছো,,কিন্তু ফ্রিজে তো খাবার রাখা আছে,,
নিলাঃহ্যা আছে অইসব খাওয়া যায় তরকারিতে একদম লবন হয়নি...
এইরে এতোদিনে তাহলে আমার ভুল ধরে দেওয়ার জন্য কেও এসেছেরে?
আমি;এহ মিথ্যা কথা আমি খেয়েছি।
নিলা;খেয়েছো আবার খাও যাও..কিন্তু আমি তোমার অই তরকারি দিয়ে খেতে পারবো না..
আমি;আচ্ছা ডিম ভেজে নিয়ে আসো একসাথে খাবো..
নিলা;কেনো একসাথে কেনো খাবো?আর শুনো আমার ডিমে কিন্তু একদম ভাগ বসাতে আসবে না.
আমি;বসাবো না,,তুমি জলদি আসো..
নিলাকে এইভাবে রান্না ঘরে দেখবো সেটা কোন দিন
ভাবতে পারি নাই...তবে মেয়েটা এখানে আসার পর থেকে একটা বিষয় লক্ষ্য করছি আগের মত নেশার জন্য পাগল না..
আমার মনে হয় অদের বাসায় থাকার কারনে আগের কথা গুলো বেশি মনে পড়তো আর এখন বাসা ছেড়ে এসেছে তাই হয়তো কিছুটা ভুলে থাকতে পাড়ছে।
এমন সময় আবার ফোন কেপে উঠলো...
অনিকাঃআমি বাসায় পৌছেছি...
তুমি বাসায় গেছো তো??
আমিঃহ্যা এসেছি
কিছু কথা হলো তারপর অনিকাই ফোন কেটে দিলো
নিলা ডিম ভেজে নিয়ে এসেছে....
খাওয়া দাওয়া শেষ করে রুমে চলে গেলাম।
এখন আর নিলাকে কিছু বলবো না আমার খুব ঘুম পাচ্ছে....
আরো গল্প পড়ুন: আমার ভালোবাসা তোর জন্য .. Valobasar Golpo 2
আমি আমার রুমে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়লাম।
পরদিন সকালে উঠে আগে ভাত রান্না করতে বসালাম।
তারপর ফ্রেশ হতে গেলাম।ফ্রেশ হয়ে আসতে আসতে ভাত রান্না হয়ে গেছে....
নিলাকে ডাকি নাই আমি রান্না করে খেয়ে দেয়ে অফিস চলে গেলাম।
অফিস যাবার পর
বস আসবো?
বসঃআরে মামুন সাহেব যে আসুন আসুন..
আমি বসের কেবিনে প্রবেশ করলাম।
বসঃতা কেমন এঞ্জয় করলেন??
আমিঃহ্যা ভালো,,বসকে এখন কিছু বলা যাবে না।বললে আবার বলবে পার্টি দিতে,লোক জানাজানি হয়ে গেলে সমস্যা হয়ে যাবে..
বসের সাথে আরো কিছু কথা বলে আমি আমার ডেস্কে চলে গেলাম।কাজে মন দিলাম অনেক দিন পর কাজ করছি...
কাজ করছি এমন সময় নিলা আমাকে ফোন দিলো..
হ্যালো হ্যা বলো??
নিলা;আসার সময় আমার জন্য(___________)নিয়ে আসবে কিন্তু??
আমিঃহ্যা নিয়ে যাবো তুমি খেয়েছো??
নিলাঃহ্যা খেয়েছি তবে না খাওয়ার মত,,তরকারিতে কেও এতো হলুদ দেয়..
আমিঃকি করবো এতোদিন তো সমালোচনা করার মত কেও ছিলো না তাই নিজের ভুল গুলো বুঝতে পারি নাই..
নিলাঃআমি এখন রাখছি আমার ভালো লাগছে না..
আমি;হ্যা সাবধানে থেকো...
নিলা ফোন কেটে দিলো..
আমি আবার আমার কাজে মন দিলাম...
অফিস টাইম শেষ এখন আমাকে বাসায় যেতে হবে...
অফিস থেকে বের হবার পর নিলার কথা মনে হলো..
তাই নিলার জন্য এক বোতল
(___)
নিয়ে নিলাম।কারন আমি চাই নিলা নেশা থেকে আস্তে আস্তে বের হয়ে আসুক...
বাসায় যাবার পর কলিংবের চাপতেই নিলা এসে দরজা খুলে দিলো...
মনে হয় আমার জন্য অপেক্ষা করছিলো..
নিলাঃকই আমার(____) কই তাড়াতাড়ি দাও
আমি নিলাকে দিয়ে দিলাম।নিলা সেটা নিয়ে দৌড়ে নিজের রুমে চলে গেলো..
আর আমি ফ্রেশ হতে চলে গেলাম।এখন আবার রান্না করতে হবে..আগে একা থাকতাম একবেলা রান্না করলে চলে যেতো কিন্তু এখন তো আর সেটা হবে না এখন বাসায় নিলা আছে...
রান্না শেষ করে আমি নিলার রুমে গেলাম।মেয়েটা আবার মাতাল হয়ে গেছে..
আমিঃনিলা এই নিলা চলো খাবে চলো..
নিলাঃএই তুই যা তো আমাকে এখন বিরক্ত করিস না..
আমিঃএই তুমি আজ না খেয়ে থাকবে না চলো খেয়ে এসে ঘুমাবে..
নিলাঃনাহ আমি খাবো না তুই যা এখান থেকে..
আমি আর নিলাকে ঘাঁটলাম না..কারন নিলা এখন নেশায় মাতাল হয়ে আছে।।।নিজের ভালো মন্দ এখন নিলা বুঝতে পাড়বে না..
তাই আমি গিয়ে খেয়ে নিলাম।ঘুমানোর আগে অনিকাকে ফোন দিলাম।কিছুক্ষণ কথা বলে ঘুমিয়ে পড়লাম।
এইভাবেই চলছিলো দিন গুলো...
নিলা এখন দিনে একবার (____)
খায়..
আরো গল্প পড়ুন: আমার ভালোবাসা তোর জন্য .. Valobasar Golpo 2
কিন্তু একটা বিষয় আমাকে খুব ভাবাচ্ছে আর সেটা হলো অনিকা আগের মত আমার সাথে কথা বলে না।আমার কথা এড়িয়ে যায়।আগে যেই মেয়েটা আমার সাথে কথা বলার জন্য পাগল থাকতো সেই মেয়েটা এখন দিনে একবারো ফোন দেবার প্রয়োজন মনে করে না..
আমি যখনি ফোন দেই অনিকা অল্প কিছু কথা বলে কথা শেষ করতে চাই..কিন্তু অনিকার কি এমন হলো যে আমার সাথে এমন করছে...কিছুদিন আগেও তো আমাদের মাঝে সব ঠিকঠাক ছিলো..কিন্তু এখন এমন কি হলো??সারাদিন মাথায় আমার এই একটাই চিন্তা থাকে..ইদানীং মাথা ব্যাথা করে এইসব ভাবতে ভাবতে...
অনিকাকে অনেকবার জিজ্ঞাস করেছি কিন্ত্ আমি অনিকারর কাছ থেকে কখনো সঠিক উত্তর পাইনি...
মাঝে মাঝে অনিকার এমন ব্যাবহারের জন্য রাতের আধারে একাই কাদি..কেও যে আমাকে একটু সাহস দিবে বা একটু শান্তনা দিবে তেমনে কেও নেই...
মাস খানেক পরর একদিন অনিকা আমাকে ফোন করে জরুরি তলব করে আমি অফিস ছিলাম।
ছুটি নিয়ে অনিকার সাথে দেখা করতে গেলাম।
আমিঃহ্যা বলো হঠাৎ এতো জরুরী তলব কেনো করলে??
অনিকাঃআমার কিছু কথা বলার আছে,,
আমিঃহ্যা বলে ফেলো..
অনিকাঃতোমার সাথে রিলেশন রাখা আমার পক্ষে সম্ভব না..
অনিকার কথা শুনে ৮৮০ ভোল্টের ঝটকা খেলাম।
আমিঃতুমি আমার সাথে মজা করছো তাই না..
অনিকাঃনাহ আমি একটুও মজা করছি না।
আমিঃতাহলে এরকম কথা কেনো বলছো??
অনিকাঃএতোদিন বোকা ছিলাম তাই চুপ করে ছিলাম।আরে তুমি এখন বিবাহিতা বাসায় তোমার বউ আছে।।তারপরেও আমি তোমার সাথে রিলেশন রেখেছিলাম।কিন্তু আমি আর এই রিলেশন রাখতে পাড়বো না।একজন বিবাহিতা পুরুষের সাথে রিলেশন রাখা আমার পক্ষে সম্ভব নয়..
আমি;প্লিজ এই রকম বলো না আমি যে তোমাকে অনেক ভালোবাসি..
অনিকাঃএই ভালোবাসাটা নিজের বউকে দেখাও কাজে দিবে...শুনো আগামী মাসের ৩ তারিখে আমার বিয়ে।।
আমিঃতুমি তাহলে সত্যি আমাকে ছেড়ে যাচ্ছো?
অনিকাঃতাছাড়া কোনো উপায় নেই..আমি নিজেকে অনেক বুঝিয়েছি কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছিলো না।পরে রাফি আমাকে অনেক বুঝালো...
আমিঃরাফি কে?
অনিকাঃআমার হবু স্বামী.শুনো তুমি তোমার বউকে নিয়ে খুশি থাকো ভালো থাকো..আমাকে আর কখনো বিরক্ত করবা না।আজ থেকে আমাদের মাঝে যা ছিলো সব শেষ..
আমি;কিন্তু আমি কি নিয়ে থাকবো??
অনিকাঃকেনো তোমার মাতাল বউ আছে না তাকে নিয়ে থাকবে।
অনিকা আর কিছু বললো না,,চলে যেতে লাগলো...
আমি কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছি না অনিকা একটু আগে আমাকে এতো সব কথা বলে গেলো।।।।
আরো গল্প পড়ুন: আমার ভালোবাসা তোর জন্য .. Valobasar Golpo 2
Share:

No comments:

Post a Comment

Search This Blog

Labels

Blog Archive

Recent Posts

Label