নতুন নতুন ভালোবাসার গল্প ও কবিতা পেতে আমাদের পাশেই থাকুন।

Golpo বড় লোকের অহংকারী মেয়ে part:03

বড় লোকের অহংকারী মেয়ে
part:03
writer:ariyan Arman
.
.
.
ঠাস সস,,,,, তারপর কে জেনো রাইসা কে চর মারলো পাসে তাকিয়ে দেখি,,, তো আমি অবাক,,, কারন এটা আর কেউ নয় মনি,,,,,

তোর এত বড় সাহস কি করে হয়,,,, আমার গায়ে হাত তুলার,,, এই বলে রাইসা যখনি মনিকে মারতে যাবে সাথে সাথে মনি রাইসা হাতটা দরে ফেললো,,,,, তারপর

তুই নিজেকে কি মনে করিস,,, আমি এই কলেজে এডমিশন নেওয়ার পর থেকে দেখছি,,, তুই আরমানের সাথে,,,, খারাপ ব্যবহার করে আসছিস,,, কেনো করছিস জানস কারন তোর মধ্যে একটা অহংকার আছে,, আর তোর থেকে আমরা সব দিক দিয়ে বড় লোক দেখ,, তারপর আমার মধ্যে কোনো অহংকার নেই,,, কারন আমার মা বাবা আমাকে যে শিক্ষা দিয়েছে সেটা আমি পালন করে আসছি,, যাইহোক তোর সাথে কথা বলার মতো সময় আমার নেই,, ও আরেকটি কথা নেক্সট টাইমে তুই যদি আরমানের সাথে খারাপ কিছু করার চেষ্টা করিস,, তখন,,, থাক বললাম না বুঝে নে,, কি হতে পারে,,,

এই বলে মনি আমার হাত দরে টানতে টানতে কলেজ থেকে বের হয়ে গেলাম,, আসার সময় দেখলাম রাইসা গালে হাত দিয়ে মাথা নিচু করে দাড়িয়ে আছে আমি মনে মনে অনেক খুশি হয়ছি,, কারন অহংকারী মেয়ে রাইসা কে একটু দমন করে পেরেছে মনি,, যাইহোক তারপর

আরমান তুমি কি এমন ভাবছো শুনি,, (মনি)

না, এমনি আজকে খুব খুশি আমি (আমি মনিকে উদ্দেশ্যে করে)

কেনো কেনো জানতে পারি,, (মনি)

আসলে,,, আজকে অহংকারী মেয়ে রাইসা একটু দমন হলো,, তাও কে করছে আমার বন্ধু,, করছে তাই খুশি লাগছে,,, (আমি)

হুমম আরো বেশি করতাম শুধু তোমার দিকে তাকিয়ে কিছু করি নাই,,, তোমার দিকে কেউ তাকালে আমি সেটা সহ্য করতে পারি না,,, (মনি)

হুমম,,,, আচ্ছা আমাকে কেউ কিছু বললে তাতে তোমার কি,,, (আমি)

আমার ও তো সব কারন আমি তোমাকে,,,, (মনি কিছু একটা বলতে চেয়ে ও বলে নাই)

আমাকে কি,, শুনি(আমি)

না থাক,,, পরে বলবো,, (মনি)
আজকাল মনির কথা গুলো কিরকম উদ্ভুদ লাগছে,,,,, দুরর

আচ্ছা আরমান চলো না আজকে আমরা কোথাও থেকে একটু ঘুরি আসি,,, (মনি)

না থাক আজকে না আরেকদিন ঘুরি,, (আমি)

না হবে না আজকে এ যেতে হবে,, তোমার সাথে বন্ধুত্ব করার পর থেকে আমরা একদিন ঘুরতে যাওয়া হয়নি,,,, (মনি করুন সুরে)

হুমম ঠিক আছে,, চলো (আমি)

তারপর মনি আর আমি মিলে,, একটা রিকশা তে উঠে,, ঘুরতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়ে পরলাম তারপর আমরা একটা জায়গায় রিকশা টা থামালো,,, জায়গা টা একদম ঠান্ডা যে কেনো মানুষ আসলে তার মন টা এমনিতেই ভালো হয়ে যাবে,,,,

তারপর হঠাৎ এ,,, মনি নিজের হাত টা আমার হাতে ঢুকিয়ে হাটতে শুরু করলো আমি মনির এমন ব্যবহারে একটু অবাক হলাম,, আমি বাধা ও দিতে পারছি না,, বন্ধু বলে,, দুররর আমার কাছে যেনো কিরকম লাগছে,,,,

তারপর,,, আমরা হাটতে হাটতে,, হঠাৎ মনি,,

আরমান এই দেখো ফুচকার দোকান ফুচকা খাবে,,,, (মনি)

হুমম চলো,, (আমি)
আমি কিন্তু ফুচকা খাই না তারপর ও বলছি কারন এখন না বললে মনি হয়তো বা আমার কথায় কষ্ট পাবে,, তারপর

মামা দুই প্যালেট ফুচকা দেন,, তো (মনি ফুচকা ওয়ালা কে উদ্দেশ্যে করে)

তারপর ফুচকা ওয়ালা,,, দুই প্যালেট ফুচকা দেওয়ার পর মনি তো সমানে খেয়ে যাচ্ছে আমি 3 পযন্ত খেয়ে আমার চোখ নাক দিয়ে পানি পরতেছে,,,, তারপর মনি আমার দিকে তাকিয়ে,,, ফুচকার প্যালেট টা ফেলে দিলো,,, তারপর ফুচকা ওয়ালা কে টাকা দিয়ে আমি দিতে চেয়েছিলাম তারপর ও জোর করে দিয়ে দিয়েছে,,,

মনি আমাকে টানতে টানতে,,,, একটা জায়গায় নিয়ে এসে,,,,

আমার দিকে রাগী চোখে তাকিয়ে আছে,,

কি হলো তুমি এমন ভাবে তাকিয়ে আছো কেনো,,, (আমি)

তুমি যে ফুচকা খেতে পারো না,, আমাকে বলবে না আগে থেকে (মনি চোখে রাঙিয়ে)

আসলে আমি তখন না বললে তুমি কষ্ট পাবে,, তাই,, (আমি)

আহারে,,, আমার কি কষ্ট ওয়ালা বাবু টা হয়েছে আপনাকে আর আমার জন্য কষ্ট করতে হবে না,,, চলো,,, সামনে যাই এবার,,,

তারপর আমরা হাটতে হাটতে একটা লেগের কাছে গিয়ে

আরে মনি তুই এখানে,,, এই বলে একটা মেয়ে মনি কে,, জড়িয়ে দরলো,,,

আরে সুলতানা,, এত দিন পরে কোথায় থেকে আসলি,, (মনি)

আচ্ছা,,, পরিচিত হয়ে নে,,, (মনি)

হূমম আমি জানি ওনি আমাদের দুলা ভাই,,, তাই না মনি তোর সাথে কিন্তু দুলা ভাইকে খুব ভালো মানিয়েছে

আমি তো মনির বান্ধবীর কথা শুনে অবাক ও কি বলে এইসব,,, আরে আপনি কি বলছেন,,, (মনি)

হুমম থাক বুঝতে পারছি দুলা ভাই লজ্জা পেতে হবে না,,,, মনি আমি ঢাকাতে আছি,, তোর নাম্বার টা দে তো,, (মনির বান্ধবী)

হুমম  ঠিক আছে,,, মনি আমি এখন আসি,, দুলা ভাই ভালো থাকবেন আমি এখন আসি,,,, (এই বলে মনির বান্ধবী চলে গেলো)

আরমান,, তুমি কিছু মনে করো না,, আসলে ও এইরকম সবার সাথে,,, (মনি)

হুমম আমি বুঝতে পারছি,, যাইহোক মনি এবার চলো অনেক সময় তো হলো আসলাম,,,, (আমি)

ওমমম এত,, ভয় পাও কেনো  তুমি পাগল ছেলে (মনি)

তারপর মনি আর আমি,,,, একটা রিকশা করে বাসার উদ্দেশ্যে চলে গেলাম,, মনি মনির বাসায় আমি আমার বাসায়,,,,

আমি বাসার সামনে গিয়ে কলিংবেল চাপ দেওয়ার দেখলাম আম্মু দরজা খুললো,,,,

কিরে আজকে এত দেরি,,,, (আম্মু)

আম্মু আসলে আজকে একটা বন্ধুর সাথে ঘুরতে গিয়েছিলাম তাই,,,, (আমি)

হুমম,, ঠিক আছে,,তারপর যখনি আমি উপরে উঠতে যাবো,,,, আরমান,,

দেখলাম আম্মু আবার ডাক দিলো,,,

জি আম্মু (আমি)

এই দিকে,, আই তো,, (আম্মু)
তারপর আমি আম্মু কাছে গিয়ে,,,,,

তোর গালে লিপ কোথায় থেকে আসলো(আম্মু)

আমি তো আম্মুর কথা শুনে অবাক,,,,,,,

.
.
.
চলবে,,,,,,,,,,,

ভুল হলে মাপ করবেন

বিঃদ্রঃ কেউ খারাপ মন্তব্য করবেন না!!
Share:

No comments:

Post a Comment

Search This Blog

Labels

Blog Archive

Recent Posts

Label